WordPressWeb DesignWeb Development

ওয়ার্ডপ্রেস কি? কিভাবে শিখবেন। ওয়ার্ডপ্রেস টিউটোরিয়াল-১

ওয়ার্ডপ্রেস টিউটোরিয়ালঃ ওয়ার্ডপ্রেস কি, কেন ওয়ার্ডপ্রেস শিখবেন, কিভাবে শিখবেন ইত্যাদি সকল প্রশ্নের উত্তর দেওয়া মাধ্যমে আজকে থেকে শুরু করতে যাচ্ছি WordPress Tutorial in Bangla সিরিজ। একজন ইন্টারনেট ব্যবহারকারী হিসাবে আপনি বিভিন্ন স্থানে ফ্রিল্যান্সিং জিনিসটির নাম শুনেছেন সেই সুবাদে নিশ্চয় ওয়ার্ডপ্রেস নামটির সাথে পরিচিত হয়েছেন। অথবা আপনি যদি ওয়েবসাইট তৈরি বা ওয়েব ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট নিয়ে কাজ করে থাকেন বা শুরু করতে যাচ্ছেন তারাও হয়তো কোথাও না কোথাও এটির সাথে পরিচিত হয়েছেন।

আজকের আর্টিকেল তাদের জন্য যারা ওয়ার্ডপ্রেস সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে চাই ও শিখতে চাই। এই আর্টিকেল আমি চেষ্টা করবো সহজ ভাবে ওয়ার্ডপ্রেস সম্পর্কে জানানোর। যারা ওয়ার্ডপ্রেসের কাজ শিখতে ইচ্ছুক তাদের জন্য শুরু করতে যাচ্ছি ওয়ার্ডপ্রেস টিউটোরিয়াল সিরিজ যেখানে আমার জানা জিনিস গুলো আপনাদের সাথে শেয়ার করবো। একটি ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট বানানোর জন্য যে বেসিক জ্ঞান থাকা প্রয়োজন সেটি দেওয়ার চেষ্টা করবো এই টিউটোরিয়াল গুলোর মাধ্যমে।

একদম শুরু থেকে কিভাবে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন তার একটি গাইডলাইন দেওয়ার চেষ্টা করবো এই ব্লগের মাধ্যমে। আমি ইতিমধ্যে ওয়েবসাইট তৈরি করতে যে সব জিনিস গুলো জানা লাগে তা নিয়ে টিউটোরিয়াল দিয়েছে যেমন ডোমেইনহোস্টিং কি জিনিস? কিভাবে এই গুলো ক্রয় করতে পারেন ইত্যাদি বিষয় চাইলে আমার ব্লগের সিপ্যানেল টিউটোরিয়াল এবং ডোমেইন ও হোস্টিং ক্যাটেগরি ভিজিট করে দেখতে পারেন।

এই আর্টিকেল সম্পর্কিত অন্যান্য আর্টিকেলঃ

BDIX Web Hosting কি? এটি ব্যবহার সুবিধা ও অসুবিধা সমূহ।

কিভাবে ডোমেইন ও হোস্টিং কিনতে হয়? – ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল।

সিপ্যানেল কি? কিভাবে ব্যবহার করতে হয়। cPanel Tutorial-1

সিএমএস কি? – What is CMS

ওয়ার্ডপ্রেস কি জিনিস সেটি জানতে হলে প্রথমে আমাদের কে বুঝতে হবে CMS কি । সিএমএস এর পূর্ণরুপ হলো কনটেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম (CMS Full form is Content Management System) । কন্টেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম হলো এমন এক ধরনের সফটওয়্যার যার মাধ্যমে কোন কোডিং দক্ষতা ছাড়া ওয়েবসাইট তৈরি ও পরিচলানার সম্ভব।

ওয়ার্ডপ্রেস কি? – What is WordPress in Bangla

ওয়ার্ডপ্রেস হলো জনপ্রিয় ফ্রি এবং ওপেন সোর্স কনটেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম সফটওয়্যার। যেটি যে কেউ বিনামূল্যে তাদের ওয়েবসাইট তৈরি করা কাজে  ব্যবহার করেত পারে। মূলত ওয়ার্ডপ্রেস যাত্রা শুরু হয় ব্লগ পাবলিশং টুলস হিসাবে কিন্তু বর্তমানে সময় ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে শুধু ব্লগ ওয়েবসাইট বানানো যায় না প্রায়ই সকল ধরেনের ওয়েবসাইট ওয়ার্ডপ্রেস প্লাটফর্মে তৈরি করা সম্ভব হচ্ছে। কালের ব্যবধানে ওয়ার্ডপ্রেস নিত্য-নতুন ফিচারস যুক্ত হওয়ার মাধ্যমে এই বিভিন্ন ওয়েবসাইট বানানোর জন্য নিজেকে যোগ্য করে তুলেছে এবং সেই সাথে নিজের জনপ্রিয়তাও বৃদ্ধি করেছে।

ওয়ার্ডপ্রেসের মাধ্যমে কোন কোডিং দক্ষতা ছাড়াই একটি ওয়েবসাইট মুহূর্তের মধ্যে বানিয়ে ফেলা যায়। এই জন্য থাকে ইন্টারনেট ও কম্পিউটার সম্পর্কে বেসিক ধারণা থাকাই যথেষ্ট। শুধু কয়েকদিন সময় করে শিখে নিলেই আপনিও সহজেই একটি ওয়েবসাইট বানাতে পারবেন ওয়ার্ডপ্রেসের মাধ্যমে।

ওয়ার্ডপ্রেস কেন এতো জনপ্রিয়?

ওয়ার্ডপ্রেস জনপ্রিয় হয়ে উঠার পিছনে অনেক কারণ রয়েছে সহজ ভাবে বলতে এটির জনপ্রিয়তার মূল কারণ হচ্ছে এটি ফ্রি এবং খুবই সহজেই এ্টি দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করা সম্ভব। একটি পার্সোনাল ব্লগ অথবা কমিউনিটি ব্লগ ওয়েবসাইট তৈরি করার চিন্তা মাথায় আসলে মানুষের প্রথম যে প্লাটফর্মটির কথা মনে পড়ে সেটি হচ্ছে ওয়ার্ডপ্রেস। কারণ ওয়ার্ডপেস দিয়ে একটি ব্লগ সাইট তৈরি করা একদম সহজ এবং ওয়েবসাইট পরিচালনা করার ক্ষেত্রে নানান ধরনের সুবিধা পাওয়া যায় ওয়ার্ডপ্রেসে।

এছাড়াও ওয়ার্ডপ্রেসে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ফ্রি এবং পেইড থিম ও প্লাগিন যার মাধ্যমে সহজেই ওয়েবসাইটের সুন্দর লুক দেওয়া যায়। ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট গুলোর ডিজাইন নির্ভর থিমের উপর এই থিম দিয়ে ওয়েবসাইট মূলত ডিজাইন করা হয়ে থাকে যা দক্ষ ওয়েব ডেভেলপারা আমাদের জন্য তৈরি করে রেখেছে। ওয়েবসাইটে নিত্য-নতুন ফিচারস যুক্ত করার জন্য রয়েছে প্লাগিন সাপোর্ট।

ওয়ার্ডপ্রেস জনপ্রিয় হওয়ার আরেকটি কারণ এটি দিয়ে সহজেই কম খরচে বিজনেস ওয়েবসাইট তৈরি করা সম্ভব হয়। যারা ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী আছে তারা সহজেই নিজের ব্যবসা কে ডিজিটালাইজড করার জন্য ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে সহজেই ও কম খরচে ই-কমার্স ওয়েবসাইট বানাতে পারে। আর এটি পরিচালনা করাও অনেক সহজ।

ওয়ার্ডপ্রেস এতো সহজ হওয়ার পরেও সব মানুষের জন্য এটি না অনেকেই আছে টেকনোলজির সাথে ফ্রেন্ডলি না। অথবা বাইরের দেশ গুলোতে তাদের কাছে এই কাজ গুলো করার সময় নেয় সেই জন্য দেখা যায় মার্কেটপ্লেসে ওয়ার্ডপ্রেস নিয়ে অনেক কাজ রয়েছে। এই জন্য অনেকেই ওয়ার্ডপ্রেস শিখে ফ্রিল্যান্সিং করে টাকা আয় করার স্বপ্ন দেখে ও বাস্তবে প্রমান করে অনেকে।

ওয়ার্ডপ্রেস কিভাবে কাজ করে

ওয়ার্ডপ্রেস কিভাবে কাজ করে সেটা কোন রকেট সায়েন্স না ওয়ার্ডপ্রেস কিছুই একটি সফটওয়্যার যা PHP ও MYSQL ব্যবহার করে তৈরি করা হয়েছে। যেন মানুষ সহজেই কোডিং জ্ঞান ছাড়ায় ওয়েবসাইট পরিচালনা করতে পারে এবং বানাতে পারে।

ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইটঃ ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে কি কি ধরনের ওয়েবসাইট তৈরি করা সম্ভব?

ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে বর্তমান সময়ে প্রায়ই সকল ধরনের ওয়েবসাইট বানানো সম্ভব হয় ছোট বা মাঝারি পরিসরের জন্য। ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে সাধারণত যে ওয়েবসাইট তৈরি করা হয় তা হলোঃ

  • ব্লগ ওয়েবসাইট
  • ই-কমার্স ওয়েবসাইট
  • বিজনেস ওয়েবসাইট
  • নিউজ ওয়েবসাইট
  • অনলাইন পোর্টাল
  • পোর্টফোলিও ওয়েবসাইট
  • রেজ্যুম ওয়েবসাইট
  • সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং ওয়েবসাইট
  • ফোরাম সাইট ইত্যাদি।

ওয়ার্ডপ্রেস কেন শিখবেন?

বর্তমানে সময়ে ডিজিটাল স্কিল থাকা অনেক গুরুত্বপূর্ণ আপনার জন্য বর্তমান বা ভবিষ্যতে ওয়েবসাইট বানানো বা ম্যানেজ করার চিন্তাধারা থাকে অথবা এই কাজটি শিখে ফ্রিল্যান্সিং করে অর্থ উপার্জনের চিন্তা থাকে শিখতে পারেন। এছাড়াও যেসব কারণে শিখতে পারেন তা নিচে সংক্ষেপে দেওয়া হলোঃ

১। নিজের ব্লগ সাইট তৈরির করার জন্য।

২। আপনি একজন ব্যবসায়ী নিজের ব্যবসা পণ্য অনলাইনে বিক্রি করতে চাচ্ছেন তাহলে শিখতে পারেন।

৩। আপনি যদি একজন ফ্রিল্যান্সার বা অন্য কোন পেশার হয়ে থাকেন তাহলে তো আপনার পোর্টফোলিও ওয়েবসাইট তৈরি করার প্রয়োজন পড়বে এই জন্য নিজেই ওয়ার্ডপ্রেস শিখতে পারেন আপনার পোর্টফোলিও ওয়েবসাইট পরিচালনার করার জন্য।

৪। ওয়ার্ডপ্রেস শিখে আপনি অনলাইন মার্কেটপ্লেস বা অফলাইনে ক্লায়েন্টের কাজ করার মাধ্যমে টাকা ইনকামের জন্য শিখতে পারেন।

৫। আইটি সেক্টরে ক্যারিয়ার তৈরি করতে শিখতে পারেন।

কিভাবে ওয়ার্ডপ্রেস শিখবেন?

ওয়ার্ডপ্রেস প্রচুর জনপ্রিয় একটি ওয়েবসাইট বিল্ডিং টুল হওয়ায় এটি শেখার রিসোর্সের অভাব নেয় আপনি অনলাইনে প্রচুর কোর্স পেয়ে যাবেন তাও আবার ফ্রিতে। এখন বিষয় ওয়ার্ডপ্রেসের কোন কাজটা আপনি শিখবেন? ওয়ার্ডপ্রেসের আসলে দুই ভাগে বিভক্ত। একদিকে ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট বানাতে যে থিম ও প্লাগিনের প্রয়োজন হয় অর্থাৎ ওয়ার্ডপ্রেস থীম এন্ড  প্লাগিন ডেভেলপমেন্ট সেক্টর রয়েছে। যেখানে আপনি থিম ও প্লাগিন বানাবেন অন্যরা যেন সহজেই একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারে।

আরেক দিকে আপনি শিখতে পারেন ওয়ার্ডপ্রেস থিম কাস্টমাইজেশন। এটির মানে হলো ওয়ার্ডপ্রেসের জন্য যে থিম ও প্লাগিন রয়েছে তা ব্যবহার করে আপনার বা অন্যের জন্য ওয়েবসাইট তৈরি করা। এটি শিখতে আপনার কোন কোডিং নলেজ এর প্রয়োজন তবুও যদি কেউ এইচটিএমএল আর সিএসএস জানে তাহলে থিম কাস্টমাইজেশন করতে অনেকটা সুবিধা হয়।

ওয়ার্ডপ্রেস থিম ও প্লাগিন ডেভেলপমেন্ট করার আগে তো আপনাকে এই ওয়ার্ডপ্রেসের ব্যবহার জানতে হবে তাই না? তাছাড়া কিভাবে এটির জন্য থিম ও প্লাগিন বানাবেন। তাই প্রথমে আপনার কাজ হবে ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহার করে কিভাবে বিভিন্ন ধরনের ওয়েবসাইট বানানো যায় বা ওয়ার্ডপ্রেসের বেসিক কাজ গুলো জানা।

এখন কিভাবে কথা ওয়ার্ডপ্রেস কোথায় শিখবেন? ওয়ার্ডপ্রেস শিখতে আপনার কোন আইটি প্রতিষ্ঠান যাওয়ার দরকার নেয়। যদি ইউটিউবে গিয়ে WordPress Tutorial লিখে সার্চ করেন তাহলে অনেক ভালো ভালো টিউটোরিয়াল পেয়ে যাবেন সেইগুলো দেখে শিখতে পারেন ওয়ার্ডপ্রেসের বেসিক থেকে এডভান্সড কাজ গুলো। এছাড়াও আমার এই ব্লগে এই পোস্টের মাধ্যমে আমি শুরু করে দিয়েছে ওয়ার্ডপ্রেস টিউটোরিয়াল সিরিজ। আমার ব্লগের মাধ্যমে ওয়ার্ডপ্রেস সম্পর্কে আমি যতটুকু জানি বা শিখছি সেই গুলো দেওয়ার চেষ্টার করবো।

এছাড়াও আগামী কোন এক পোস্টে আমি আপনাদেরকে ওয়ার্ডপ্রেসে শেখার রিসোর্স গুলো সামনে নিয়ে আসবো। বর্তমানের জন্য আপনারা GrowBig , Nayyar Shaikh এই দুটি ইউটিউব চ্যানেল ফলো করতে পারেন।

ওয়ার্ডপ্রেস শিখতে কতদিন লাগে

ওয়ার্ডপ্রেস শিখতে কতদিন সময় লাগে সেটি সঠিক ভাবে বলা সম্ভব না কারণ সবার শিখার ক্ষমতা একই না। তবুও যদি বলতে হয় যে ওয়ার্ডপ্রেসের বেসিক কাজ গুলো শিখতে আপনার ১ সপ্তাহ হলেই চলবে এটি কিন্তু বেসিক শিখতে তারপর আপনি কাজের আসতে ধীরে নিজের থাকে আরো ভালো করে শিখতে পারেন। আসলে শিখার কোন শেষ নেয় কিন্তু আপনি যদি ওয়ার্ডপ্রেসের বেসিক কাজ গুলো শিখে ফেলেন তাহলে বাদ বাকি যেকোন ওয়েবসাইট তৈরি করা ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে আপনার জন্য সহজ হয়ে যাবে।

এমন কি আমিও ওয়ার্ডপ্রেস কাস্টমাইজেশনের সব কিছু পারি না যখন যে জিনিস লাগে সেটি ইউটিউব গুগল থেকে শিখে নিয়ে তারপর অ্যাপ্লাই করি কাজে। আমি মূলত ওয়ার্ডপ্রেস শিখেছিলাম ব্লগিং করার জন্য সেই সুবাধে ধীরে ধীরে ব্লগিং করার বাইরেও ওয়ার্ডপ্রেসকে এক্সপ্লোর করি।

ওয়ার্ডপ্রেস শিখে আয়

অবশ্যই আপনি ওয়ার্ডপ্রেস শিখে আয় করতে পারবেন কিন্তু আমার পরামর্শ থাকবে শুরুতে ইনকামের চিন্তা না করে কাজটি শিখার জন্য করুন নিজের স্কিল ডেভেলপ করতে করুন। তাছাড়া ইনকাম নিয়ে চিন্তা করলে এক সময় হতাশায় পড়বেন অনেক প্রতিষ্ঠান বা ব্যক্তি ফ্রিল্যান্সিং এর নামে করে তাদের কোর্সে জয়েন করাবে এই ফাঁদে পাঁ দেওয়া যাবে না। ঐ লোভনীয় বিজ্ঞাপন দিয়ে যেমন আপনাকে আর্কষণ করেছে ঠিক তার বিপরীতটা হলো ফ্রিল্যান্সিং জগত। যা নিয়ে আসলে কেউ কথা বলে না হুট করে কেউ এতো ইনকাম করে না শুধু কোর্স সেল দিয়ে খাওয়ার জন্য সাধারণ মানুষ কে কয়েকমাস কোর্স করে ইনকামের আশা দেখিয়ে ঠকায়। এই সব থেক যত দূরে থাকবেন ততো আপনার জন্য ভালো।

First Learn Then Earn

ওয়ার্ডপ্রেস শেখার শুরু করতে কি কি প্রয়োজন?

আপনার বেসিক কম্পিউটার ব্যবহার করার জ্ঞান, সফটওয়্যার ব্যবহার করার জ্ঞান ও ইন্টারনেট ব্যবহার করা জ্ঞান থাকলেই চলবে। ইন্টারনেট চালানো বলতে আবার শুধু ফেসবুক গুতানো না প্রয়োজন পড়লে কোন সমস্যার সমাধান বের করা। কোন ওয়েবসাইট অ্যাকাউন্ট করা ইত্যাদি জিনিস গুলো জানা থাকলে আপনার শেখার যাত্রাটা ভালো হয়।

ওয়ার্ডপ্রেসে শেখা শুরু করতে আপনার প্রথম যে জিনিসটা প্রয়োজন সেটি হচ্ছে ডোমেইন ও হোস্টিং। ডোমেইন হোস্টিং কোথায় পাবেন বা কিভাবে কিনবেন সেটি নিয়ে আমার ব্লগ আছে দেখে নিবেন। এখন কথা আপনার যদি উদ্দেশ্য শুধু শেখার হয়ে থাকেন তাহলে আপনার ডোমেইন হোস্টিং কেনার দরকার নেয় লোকাল হোস্ট নামে জিনিস আছে যেটার মাধ্যমে আমরা আমাদের পিসি কে হোস্টিং বানিয়ে ব্যবহার করতে পারবো।

কিন্তু আপনি যদি একবারে বাস্তব হোস্টিং সার্ভারে সাথে কাজ শিখতে চান তাহলে ও আসলেই আপনার ওয়েবসাইট বানাবেন তাহলে লাইভ হোস্টিং কিনে নিতে পারেন। আমাদের এই আর্টিকেল গুলো স্পন্সর করেছে BDIXWebHosting এরা উন্নতমানের BDIX Hosting সেবা দিয়ে থাকেন। আপনি চাইলে তাদের কাছে থেকে হোস্টিং কিনে নিয়ে ব্যবহার করতে পারেন তাদের কাছে থেকে কিভাবে হোস্টিং কিনবেন সেটি উপরের শুরুতেই দেওয়া আছে।

নোটঃ ডোমেইন ও হোস্টিং এর ব্যবহার করা জানতে হবে সেটি কিভাবে করবেন তার টিউটোরিয়াল সিরিজ কিন্তু আমার ব্লগে রয়েছে দেখে নিন আর এছাড়াও বাকি কাজ গুলো শেখার যাত্রা সময় শিখে নেওয়া হবে।

আমরা জানলাম ওয়ার্ডপ্রেস কি? এখন পরবর্তী শিখতে হবে কিভাবে ওয়ার্ডপ্রেস ইনস্টল করতে হয় যেটি নিয়ে আগে থেকে টিউটোরিয়াল বানিয়ে রেখেছি। সিপ্যানেল থেকে কিভাবে ওয়ার্ডপ্রেস ইনস্টল করবেন? – cPanel Tutorial-5

কিন্তু যাদের হোস্টিং নেয় তারা কিভাবে ফ্রি হোস্টিং বা লোকাল হোস্টে কাজ করবেন সে নিয়ে আর্টিকেল দিবো পরবর্তী টিউটোরিয়ালে।

ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন। পোস্ট ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের বা সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন।

কুয়েরিঃ সিএমএস কি, ওয়ার্ডপ্রেস কি কেন শিখব, ওয়ার্ডপ্রেস শিখতে কতদিন লাগে, ওয়ার্ডপ্রেস কিভাবে কাজ করে, ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি, ওয়ার্ডপ্রেস শিখে আয়।

Facebook Comments Box

MD Biplop Hossain

আমি এক স্ব-ঘোষিত হাবলু যে প্রযুক্তিকে ভালোবাসে এবং সেটি নিয়ে শিখতে জানতে পছন্দ করে। এই ধারাবাহিকতায় হাবলু যা জানে ও শিখছে সেই সকল জিনিস গুলো নিয়ে লেখার মাধ্যমে আপনাদেরকে জানানোর চেষ্টা করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
error: Content is protected !!